Back

Home

A+ A A-

返回

শীতে কি কম পানি পান করা উচিত?

2019-12-27 16:14:53

শীতে সুস্থতার জন্য বেশি পানি পান করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি ব্যাপার। কিন্তু, অনেকেই মনে করেন,  শীতে ঘাম হয় না বলে বেশি পানি পান করার দরকার নেই। আসলে এটি পুরোপুরি ভুল। কম পানি পান করলে, শরীর যে-কোনো রোগে আক্রান্ত হতে পারে; বিশেষ করে শীতে। প্রশ্ন হচ্ছে: শীতে কেন বেশি পানি পান করতে হবে? এতে কী কী কল্যাণ নিহিত আছে? আজকের 'জীবন যেমন' আসরে আমরা এ প্রশ্নের উত্তর খোঁজার চেষ্টা করবো।

কল্যাণ ১. প্রয়োজনীয় পানির চাহিদা পূরণ করা

শরীরে সবসময়ই পর্যাপ্ত পানি থাকা দরকার। প্রয়োজনীয় পানির অভাব হলে, শরীর যে-কোন রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। সুতরাং, শীতেও প্রয়োজনীয় পানি পান করা জরুরি।

কল্যাণ ২. সুষ্ঠু রক্তপ্রবাহ

শীতে অনেকের শরীরে রক্তপ্রবাহের সমস্যা হয়। কারণ, শরীরে তখন রক্তের ঘনত্ব বেড়ে যায়। এ সমস্যাকে উপেক্ষা করা উচিত নয়। বিশেষ করে উচ্চ রক্তচাপের রোগীদের জন্য রক্তের ঘনত্ব বেড়ে যাওয়া বেশি বিপজ্জনক। সুতরাং, বেশি বেশি পানি পান করা উচিত; তা না হলে শরীরে রক্তপ্রবাহ বাধাগ্রস্ত হবে।

কল্যাণ ৩. রোগ-প্রতিরোধক ক্ষমতা বাড়ায়

রোগ-প্রতিরোধক ক্ষমতা মানবদেহের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। রোগ-প্রতিরোধক ক্ষমতা কমে গেলে শরীর বিভিন্ন ধরনের অসুখে আক্রান্ত হতে পারে। সুতরাং, শরীরের সুস্থতা চাইলে রোগ-প্রতিরোধক ক্ষমতা থাকা দরকার। এই ক্ষেত্রে পানি পান করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ; বিশেষ করে শীতে ।

কল্যাণ ৪. মুখের ত্বক রক্ষা করে

মুখের ত্বক মসৃণ করার জন্য পানি পান করা এক অপরিহার্য ব্যাপার। বেশি পানি পান করুন। পানিও শরীরে অন্যতম এক পুষ্টিকর উপাদান। প্রতিদিন ১ থেকে ২ লিটার পানি পান করার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। পানি ত্বক মসৃণ রাখতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে; বিশেষ করে শীতে। শীতে প্রচুর বাতাস  থাকার কারণে ত্বকে পানির অভাব হয়। মুখের ত্বকের জন্য বেশি পানি পান করা দরকার।